Connect with us

শিক্ষা

চিঠি লেখার অসাধারণ নিয়ম ||The Amazing rules of letter Writing in Bangali

Published

on

চিঠি লেখার অসাধারণ নিয়ম

চিঠি লেখার অসাধারণ নিয়ম ||The Amazing rules of letter Writing in Bangali

চিঠি লেখার অসাধারণ নিয়ম

চিঠি লেখার অসাধারণ নিয়ম

প্রিয় জ্ঞান পিপাসু বন্ধুরা।আজকে আমরা জানতে যাচ্ছি, চিঠি লেখার অসাধারণ কিছু নিয়ম।এই আর্টিকেলটি পড়লে আর কোন দিন চিঠি লেখার নিয়ম ভুলবেন না।এমন কোন শিক্ষার্থী নেই,যে এই চিঠির সাথে পরিচয় হয়নি।হয়তো আমরা দীর্ঘ দিন অধ্যয়ন না করার কারণে আমরা চিঠি লেখা ভুলে যায়।চলুন আমরা আজকের বিষয় নিয়ে শুরু করি। 

Advertisement

চিঠি পত্রের পরিচয় 

স্বস্থান থেকে দূরে কোথাও কোন সংবাদ আদান প্রদানের মাধ্যমকে বলা হয় চিঠি।এক সময় মানুষ নিজের পড়াশোনা, ব্যবসা বানিজ্য, চাকরি ইত্যাদি করার জন্য অনেক দূর যেতে হতো।তখন যাতায়াত করা খুবই কষ্ট হতো।তাই গ্রামের কোন খবর শহরে বা শহরের কোন খবর গ্রামে।অথবা দেশের কোন খবর বিদেশে বা বিদেশের কোন খবর দেশে পাঠানোর একমাত্র মাধ্যম ছিলো চিঠি। বর্তমানে চিঠি পত্রের তেমন ব্যবহার না হলেও কিছু কিছু কাজে এখনও চিঠি ব্যবহার হয়।বিভিন্ন চাকরির ক্ষেত্রে চিঠি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।বর্তমান ডিজিটাল যুগে চিঠির ব্যবহার কমে গেলেও একজন শিক্ষিত পারসন হিসেবে চিঠির নিয়মকানুন জানা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। 

Advertisement

চিঠি পত্রের শ্রেণি-বিভাগ

প্রথমতো এটাকে দুই ভাগে ভাগ করা যায়-

১.ব্যক্তিগত চিঠিপত্র 

Advertisement

২.প্রাতিষ্ঠানিক চিঠিপত্র

Advertisement

ব্যক্তিগত চিঠি পত্র 

যে পত্র নিজের চেনা পরিচিত মানুষের মানুষের কাছে লিখা হয় তাকে ব্যক্তিগত চিঠি বলে। যেমন;মা-বাবা,ভাই,বোন,দাদা,দাদী ইত্যাদি।এটি আবার দুই প্রকার-

.পরিস্থিতি বর্ণনা

Advertisement

২.প্রতি উত্তর

Advertisement

পরিস্থিতি বর্ণনা বলতে,নিজের সমসাময়িক অবস্থার কাথা তুলে ধরা।আর কেউ যদি কোন কিছু সম্পর্কে জানতে চায়,তার প্রশ্নকে কেন্দ্র করে যে বিষয় গুলো তুলে ধরা হয় তাকে প্রতি উত্তর বলতে পারি। 

Advertisement

প্রাতিষ্ঠানিক চিঠি পত্র 

একটি সরকারি বা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে নির্দিষ্ট কিছু বিষয় বস্তুকে কেন্দ্র করে যে পত্র লেখা হয় তাই প্রাতিষ্ঠানিক চিঠি পত্র।যেমন;চাকরিতে যুক্ত বা প্রত্যাহার, কোন নোটিশ,বন্ধ বা ছুটি ইত্যাদি বিষয়ে লেখা। 

প্রতিষ্ঠানিক চিঠি পত্রে নিম্নে বিষয় গুলো থাকা আবশ্যকঃ-

Advertisement
  • তারিখ 
  • বিষয় বস্তুর শিরোনাম 
  • অভিবাদন
  • বিষয় বস্তুর মূল কথা
  • বিষয় বস্তুর মূল উদ্দেশ্যে অভিবাদন
  • সাক্ষর
  • প্রাপক ও প্রেরক উভয়ের সঠিক ঠিকানা

চিঠি লেখার নিয়মাবলী

নিম্ন বর্নিত ধাপ সমূহ অনুসরণ করলে,আপনি অতি সহজে একটি চিঠি লিখতে পারবেন-

  1. আপনার কাছে যদি একটি সাদা পেইজ থাকে,তাকলে তার দুই পাশে স্কেল দিয়ে মার্জিন টেনে ফেলেন।এতে আপনার চিঠিটা চমৎকার দেখাবে।
  2. বাম দিকে তারিখ লিখে ফেলুন। 
  3. তারপর প্রিয়+শব্দের সাথে,যার কাছে লিখবেন তার নাম লিখে ফেলুন। 
  4. এরপর সালাম/শান্তি কামনা করুন।কেমন আছ?তাও জিজ্ঞেস করুন। 
  5. যে বিষয় সম্পর্কে লিখছেন,তার বিস্তারিত উল্লেখ করবেন।
  6. “আজ আর নয়”এমন কথা উল্লেখ করুন। 
  7. ‘ইতি’ শব্দের সাথে আপনার নাম লিখুন।
  8. খামের উপরে প্রেরক ও প্রাপক লিখুন।

উপরে যে ধাপ গুলো উল্লেখ করা হয়েছে, তা অবশ্যই স্বরণ রাখবেন।আর একটি চিঠির জন্য এই নিয়মগুলোই যথেষ্ট হবে।

Advertisement

নিমন্ত্রণ পত্র লেখার নিয়মাবলী

একটি উদাহরণ দিয়ে বুঝালে মনে হয়, আর কোন নিয়ম উল্লেখ করা প্রয়োজন নেই।” মনে করুন,আপনি শহিদুল। আপনার বন্ধু আমির।আপনার বড় ভাইয়ের ছেলের জন্মদিন।তাকে আমন্ত্রণ জানিয়ে একটি পত্র লেখ।”

০১ জানু,২০২৩

Advertisement

প্রিয় আমির

আশা করি অনেক ভালো আছো?আমি তোমাকে অনেক আগেই বলেছিলাম যে,আগামী মাসের ১ তারিখ আমার বড় ভাইয়ের ছেলের জন্মদিন।আমার ভাতিজাকে আমি অনেক ভালোবাসি। তাই, তুমি আমার ঘনিষ্ঠ বন্ধু হিসেবে উপস্থিতি কামনা করি।

Advertisement

আজকের মতো এখানেই শেষ। কিন্তু অনুষ্ঠানের মধ্যে দু’জন অনেক মজা করবো।

ইতি তোমার বন্ধু 

Advertisement

শহিদুল 

Advertisement

প্রাতিষ্ঠানিক চিঠি পত্র লেখার নিয়মাবলী 

যে কোন অফিস আদালত বা প্রতিষ্ঠানের জন্য চিঠি লিখা তেমন কঠিন নয়।তবে,একটি প্রতিষ্ঠানের জন্য চিঠিটা খুবই সুক্ষ্ম ভাবে লিখা প্রয়োজন।নিম্নে এ সম্পর্কে একটি নমুনা দেওয়া হলো।এই নিয়মে লেখলেই আপনার চিঠি পরিপূর্ণ হয়ে যাবে।

তাং-০১ জুন,২০২৩

Advertisement

স্যার/জনাব

প্রথমে আমার সালাম/আদাব নিবেন (বিস্তারিত)…………………………………

Advertisement

ইতি

আপনার নাম…. 

Advertisement

আবেগ/রোমাঞ্চকর চিঠি পত্র লেখার নিয়মাবলী

সাধারণত চিঠি পত্র যে কোন বিষয়ের ক্ষেত্রে তেমন পার্থক্য দেখা যায় না।আমার যে কোন বিষয়ে চিঠি লেখব না কেন।আপনি কোন টপিক নিয়ে লিখতে বসেছেন, সে বিষয়টা নিয়ে একটু ভাবুন। আর শব্দের চয়ন গুলো সে ভাবেই ব্যবহার করুন।নিম্নে একটি নমুনা দেওয়া হলো।

তারিখঃ০১/০২/২০২৩

Advertisement

প্রিয় জামিল/জামিলা,

অনেক দিন হলো তোমার চিঠি পায়না।গত শনিবার হঠাৎ তোমার চিঠি পেয়ে আমি হতভম্ব হয়ে গেলাম।আর তোমার চিঠিটা পড়তে পড়তে আমার দু’চোখ দিয়ে পানি গড়িয়ে পরলো।জানিনা আমি তোমার সাথে আর দেখা করতে পারবো কি না।তবে জীবনে তোমার কথা কখনো ভুলতে পারবো না।তুমি আমার জীবনের একটি অংশ হয়ে থাকবে।তুমি মনে করোনা যে আমি তোমাকে ভুলে যাবো।তোমার স্মৃতি গুলো আমার মনের এক কোণে জায়গা করে নিয়েছে। 

Advertisement

আজ আর নয়।আমার জন্য দোয়া করবেন।আমিও তোমার জন্য দোয়া করি 

ইতি তোমার প্রিয় 

Advertisement

হামিদ/হামিদা

Advertisement

বন্ধু /বান্ধবীকে চিঠি লেখার নিয়ম 

আমরা অনেকেই চিঠি পত্র লেখার সময় নিয়মকানুন গুলোকে ভিন্ন কিছু মনে করি।কিন্তু আপনি একটা চিঠি লেখা শিখার পর হাজার হাজার চিঠি লিখতে পারবেন।কোন সমস্যা হবে না।বন্ধু /বন্ধবীকে চিঠি লিখার ক্ষেত্রে উপরের নিয়মটা অনুসরণ করুন। তাহলে একটি চমৎকার চিঠি তৈরি হবে।

Advertisement

পরিশেষে 

আমি আশাবাদী যে,আপনি যদি সম্পূর্ণ আর্টিকেলটা সুন্দর করে পড়ে থাকেন।তাহলে কোনদিন চিঠি পত্র লেখা নিয়ে কোন সমস্যা হবে না।এ ধরনের উপকারী ও তথ্যবহুল আর্টিকেল নিয়মিত পাওয়ার জন্য ভিজিট করুন amirinfobangla ওয়েবসাইটে। || ধন্যবাদ ||

Advertisement
Continue Reading
Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement

Trending